notunBLOG
নতুনBlog » অ্যাপল » অ্যাপলের নতুন চমক iPhone X

অ্যাপলের নতুন চমক iPhone X

গত ৪ নভেম্বর অ্যাপল তাদের আইফোন পরিবারে নতুন iPhone X সংযোজন করে। এটি হল অ্যাপল এর সবচেয়ে দামী ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ফোন। গত ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখে অ্যাপল এর সিইও টিম কুক প্রথমবারের মত নতুন আইফোনের পর্দা উন্মোচন করেন। এদিন একই সাথে iPhone 8, iPhone 8 Plus ও iPhone X এর ধারণা দেন টিম কুক। সেদিন থেকে নতুন আইফোনের অগ্রিম অর্ডার নেওয়া শুরু করে অ্যাপল কর্তৃপক্ষ। অ্যাপল কর্তৃপক্ষ আইফোন এক্সের মূল্য নির্ধারণ করে ৯৯৯$(64 GB) এবং ১,১৪৯$(256 GB)। নতুন আইফোনের Launch Date নির্ধারণ করা হয় ৩ নভেম্বর। অতঃপর অপেক্ষার পালা শেষ হয়। ৩ নভেম্বর সকাল থেকে আইফোন প্রেমীরা তাদের নতুন আইফোন বুঝে পাওয়ার জন্য অ্যাপলের দোকানের সামনে ভিড় করতে শুরু করে। আইফোন প্রেমীদের অনেকেই নতুন এ আইফোনকে iPhone 10 নামে ডাকতে পছন্দ করেন। যদিও অ্যাপল কর্তৃপক্ষ নতুন এ আইফোনের নাম দিয়েছেন আইফোন এক্স। এবার আসুন জেনে নেওয়া যাক যে এবারের আইফোনে কি কি থাকছে।

iphone x

 

Networking

2G Net GSM 850 / 900 / 1800 / 1900CDMA 800 / 1900 / 2100 – A1865

3G Net HSDPA 850 / 900 / 1700(AWS) / 1900 / 2100 – A1901, A1865CDMA2000 1xEV-DO & TD-SCDMA – A1865

4G Net LTE band 1(2100), 2(1900), 3(1800), 4(1700/2100), 5(850), 7(2600), 8(900), 12(700), 13(700), 17(700), 18(800), 19(800), 20(800), 25(1900), 26(850), 28(700), 29(700), 30(2300), 34(2000), 38(2600), 39(1900), 40(2300), 41(2500), 66(1700/2100) – A1901, A1865

GPS Yes, with A-GPS, GLONASS, BDS, GALILEO

SIM NANO-SIM

Display

Display Type Super AMOLED capacitive touchscreen, 16M colors

Size 5.8 inches, 1125 x 2436 pixels

PPI ~458 ppi

Multitouch Yes

Protection Scratch-resistant glass – Dolby Vision/HDR10 compliant – Wide color gamut display – 3D Touch display & home button – Display Zoom – True-tone display

Built

Dimensions 143.6 x 70.9 x 7.7 mm

Weight 174 Grams

iPhone X Camera

Primary Dual 12 MP

Features f/1.8 & f/2.4, phase detection autofocus, OIS, 2x optical zoom
-LED (dual tone) flash, geo-tagging, simultaneous 4K video and 8MP image recording, touch focus, face/smile detection, HDR (photo/panorama)

Video 2160p@24/30/60fps, 1080p@30/60/120/240fps

Secondary 7 MP, f/2.2, 1080p@30fps, 720p@240fps, face detection, HDR, panorama

Hardware

OS IOS 11

Chipset Apple A11 Bionic

CPU Hexa-Core

Sensors Face ID, accelerometer, gyro, proximity, compass, barometer

RAM 3 GB

Internal Storage 64 GB/256 GB

External Storage None

Multimedia

Alert Vibration, proprietary ringtones

Speaker Type Stereo

3.5 mm Jack No ( -Active noise cancellation with dedicated mic. – Lightning to 3.5 mm headphone jack adapter)

Radio No

আরো দেখুনঃ Android ফোন আপডেট করার ধাপ

Connectivity

GPRS Yes

EDGE Yes

Speed HSPA 42.2/5.76 Mbps, LTE-A (4CA) Cat16 1024/150 Mbps, EV-DO Rev.A 3.1 Mbps

Wlan Wi-Fi 802.11 a/b/g/n/ac, dual-band, hotspot

Bluetooth 5.0, A2DP, LE

USB 3.0, reversible connector

NFC Yes (Apple Pay only)

Other features

Messaging iMessage, SMS (threaded view), MMS, Email, Push Email

Browser HTML5 (safari)

Colors Space Grey, Silver

Java No

Miscellaneou Fast battery charging: 50% in 30 min
– Wireless charging
– Siri natural language commands and dictation
– iCloud cloud service – MP3/WAV/AAX+/AIFF/Apple Lossless player
– MP4/H.264 player
Audio/video/photo editor
– Document editor

নতুন এ iPhone X -এ দেখা মিলবে চমক জাগানো সব প্রযুক্তির যেগুলো এর আগে কোনো ফোনে ব্যবহার করা হয় নি। নতুন এ iphone X এর বডি কিন্তু গ্লাস এর তৈরি। অর্থাৎ ফোনের সাইড প্যানেল ও ব্যাক প্যানেল গ্লাস দিয়ে কভার করা।

গ্লাস দিয়ে ফোনের বডি কভার করে দেয়ায় নতুন এ আইফোন যেমন দেখতে স্টাইলিশ তেমনি অনেক ফ্যাশনেবল।

আইফোন এক্স এর আরেকটি চমক হল ওয়্যারলেস চার্জিং।এর ফলে অন্যান্য ফোন ও আইফোনের পুরাতন ভার্সনগুলোর মত তার দিয়ে চার্জারের সাথে কানেক্ট করে চার্জ দিতে হবে না। এছাড়াও গ্লাস দিয়ে ব্যাক প্যানেল কভার করে দেওয়ার ফলে খুব সহজে ও দ্রুত ফোন চার্জ করা যাবে।

নতুন আইফোনে থাকছে না কোনো হোম বাটন।ফলে কোন অ্যাপ কিংবা গেইম থেকে বের হতে হলে আগের মত কোন হোম বাটন ব্যবহার করতে পারবেন না। নতুন আইফোনে কোন অ্যাপ কিংবা গেইম থেকে বের হতে হলে আপনাকে ফোনের স্ক্রিনের নিচ থেকে উপর পর্যন্ত swipe করতে হবে। এভাবে স্ক্রিন সোয়াইপ করলে আপনি অ্যাপ ও গেইম থেকে এক্সিট করতে পারবেন। আর আপনি যদি একাধিক অ্যাপ কিংবা গেইম মিনিমাইজ করে চালাতে চান তাহলে স্ক্রিনের নিচ থেকে মাঝ পর্যন্ত সোয়াইপ করে আঙুলকে ঐটুকুতেই রেখে দিতে হবে। ব্যস হয়ে গেল আপনার অ্যাপ কিংবা গেইম মিনিমাইজ। কোনো অ্যাপ কিংবা গেইম মিনিমাইজ করা অবস্থায় অন্য কোনো অ্যাপ কিংবা গেইমে যেতে চাইলে একই পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

নিরাপত্তার দিক বিবেচনায় আইফোন এক্সে ‘Face ID‘ নামে Facial Recognition ব্যবস্থা চালু করেছে অ্যাপল। এ নিরাপত্তা ব্যবস্থা চালু করলে ফোন আনলক করা, অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ও গেইম ক্রয় করা,আই টিউনস থেকে মিউজিক ক্রয় করা ও অ্যাপল পে ব্যবহার করার সময় ফেইস আইডি আপনার ফেসিয়াল ভেরিফিকেশন করে নিবে। ফেইস আইডি সেট আপ করা সম্পূর্ণরূপে ফিঙারপ্রিন্ট সেট আপ করার অনুরুপ। ফেইস আইডি সেট আপ করতে হলে Settings>Security>Face ID>Set Up Face ID তে ট্যাপ করে ফেইস আইডি সেট আপ করতে হবে। এ প্রসেসে ফোনের ফ্রন্ট ক্যামেরা আপনার ফেইসের ফটো নিবে। এভাবে ৪-৫ বার করে আপনার পুরো ফেইসের ফটো নিবে। একটি কথা মনে রাখবেন, আপনি এই প্রসেসে নিজের ফেইস যেরকম রেখেছিলেন ফেইস আইডি ব্যবহার করে ফোন আনলক করার সময়ও ফেইস একইরকম রাখতে হবে। সহজভাবে বলতে গেলে, আপনি ফেইস আইডি সেট করার সময় আপনি চোখ খোলা রেখে আইডি সেট করেন। তাহলে ফেইস আইডি ব্যবহার করে ফোন আনলক করার সময়ও আপনাকে চোখ খোলা রেখে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। ফেইস আইডি ব্যবহার করলে আপনার ফোনের পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে। কেননা ফেইস আইডি সেট করার সময় আপনার ফেইসের যে অবস্থান ছিল, ফোন আনলক করার সময়ও আপনার ফেইসের ঠিক সে পজিশন থাকতে হবে। নইলে আপনার ফোন আনলক হবে না। এর ফলে আপনার ফোন কখনও চুরি হলেও ফোনের তথ্য চুরি হবে না। এছাড়া ফেইস আইডি ব্যবহারের ফলে আপনার স্ত্রী কিংবা গার্লফ্রেন্ড কখনো আপনার ঘুমের সময় আপনার ফোন চেক করতে পারবে না।

এছাড়াও Apple A11 Bionic chipset, Hexa-Core CPU ও 3 GB RAM এর ফলে নতুন আইফোনে গেমিং এক্সপেরিয়েন্স হবে দারুণ। ডুয়াল ১২ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরার জন্য আপনার ফটো ও ভিডিও এক্সপেরিয়েন্স হবে অবিশ্বাস্য। আর ৭ মেগাপিক্সেল সেকেন্ডারি ক্যামেরায় আপনার সেলফি ও ভিডিও এক্সপেরিয়েন্সও হবে অতুলনীয়। আইফোনের ভিডিও কোয়ালিটি এতটাই ভাল যে তা ইউটিউবে ১০৮০ পিক্সেল কোয়ালিটিতে প্লে হয়।

নতুন এই আইফোনের জন্য অধীর আগ্রহে নিশ্চয় বসে আছেন সকলে। তবে বাংলাদেশের বাজারে এখনো পর্যন্ত আইফোন এক্স আসে নি। রবি, বাংলালিংক ও গ্রামীণফোনের মত অপারেটররাও এখনো আইফোন এক্স বাজারে আনার ব্যাপারে আগ্রহী নন। তাছাড়া কবে নাগাদ নতুন এ আইফোন বাংলাদেশের আইফোন প্রেমীদের হাতে আসবে তাও জানা সম্ভব হয় নি। তবে খুব শীঘ্রই আইফোন এক্স বাংলাদেশের বাজারে আসবে বলে আশা করা যায়। বাংলাদেশে আইফোন এক্সের দাম পড়বে আনুমানিক ৮৩,০০০ টাকা (64 GB) ও ৯৫,০০০ টাকা (256 GB)।

 

মন্তব্য করুন

জানুন সবার আগে

বিশ্বে ঘটে যাওয়া যেকোন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেতে আপনার ইমেইল এড্রেস লিখে ফেলুন

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

সংযুক্ত থাকুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।