notunBLOG
Home » ইউটিউব » ইউটিউব মনিটাইজেশনে নতুন আপডেট

ইউটিউব মনিটাইজেশনে নতুন আপডেট

কিছুদিন আগে ইউটিউব তাদের মোনেটাইজেশন প্রক্রিয়ায় কিছু পরিবর্তন আনে যার ফলে অনেক ইউটিউবাররাই কিন্তু এখন ইউটিউবের ওপর খুব রেগে আছেন। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক যে ইউটিউবের নতুন আপডেটে কি থাকছে ইউটিউবারদের জন্য।

ইউটিউব-মনিটাইজেশন

ইউটিউব সাইট




এক নজরেঃ

ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে কিছু কথা

ইউটিউবের নতুন মোনেটাইজেশন আপডেট সম্পর্কে জানার আগে আসুন ইউটিউব মোনেটাইজেশন সম্পর্কে কিছু কথা জেনে নেওয়া যাক। প্রথমদিকে ইউটিউবের মাধ্যমে আয় করা এত কঠিন ছিল না। ২০১৬ সাল পর্যন্ত ইউটিউব চ্যানেল মোনেটাইজ করা ছিল খুব সহজ কাজ। তখন শুধুমাত্র একটি ইউটিউব চ্যানেল খোলার পর চ্যানেলের সেটিংস অপশন থেকে মোনেটাইজেশন চালু করে দিলেই চ্যানেল মোনেটাইজ হয়ে যেত এবং চ্যানেলে ভিডিও আপলোড দেওয়ার পর সাথে সাথে ভিডিওতে এড যুক্ত হয়ে যেত। ফলে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ইউটিউব চ্যানেল মোনেটাইজ করা এবং তা থেকে আয় করা খুব সহজ ছিল। কিন্তু ২০১৬ সালের মাঝামাঝি সময়ে ইউটিউব তাদের মোনেটাইজেশন প্রক্রিয়াতে নতুন একটি আপডেট নিয়ে আসে যাতে বলা হয় যে ইউটিউব চ্যানেলে ১০০০০ ভিউ না হওয়া পর্যন্ত চ্যানেল মোনেটাইজ করা যাবে না। পরবর্তীতে প্রায় ১ বছরেরও বেশি সময় পর গত ১৭ জানুয়ারি ইউটিউব তাদের মোনেটাইজেশন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করে।

মোনেটাজেশন প্রক্রিয়া ঘন ঘন পরিবর্তন কেন হয়?

যেমনটা বলেছি ২০১৬ সাল পর্যন্ত ইউটিউব চ্যানেল মোনেটাইজেশন করা খুব সহজ ছিল। যেকোনো কেউ চাইলেই যেকোনো প্রকার ভিডিও আপলোড করে মোনেটাইজেশন চালু করে আয় করতে পারত। কিন্তু এ প্রক্রিয়ার সুযোগ নিয়ে অনেক ইউটিউবার অন্যের ভিডিও আপলোড দিয়ে, নিম্ন মানের ভিডিও আপলোড দিয়ে আয় করা শুরু করে। ফলে ইউটিউবের এডভার্টাইজাররা ইউটিউবে এড দেওয়া বন্ধ করে দেয়। যার ফলে ইউটিউবের অনেক ক্ষতি হয়। তাই এডভার্টাইজারদের চাহিদা পূরণ করতে ও এডভার্টাইজারদের ইউটিউবে ফেরত আনার জন্য ইউটিউব ২০১৬ সালে প্রথম তাদের মোনেটাইজেশন প্রক্রিয়ায় পরিবর্তন আনে। এরই ধারাবাহিকতায় ইউটিউব কিছুদিন পর পর তাদের মোনেটাইজেশন প্রক্রিয়া পরিবর্তন করে।

ইউটিউব মনিটাইজেশনের নতুন আপডেট ২০১৮

আমার পূর্ববর্তী পোস্টগুলো পড়ে আপনারা জানতে পেরেছিলেন যে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে ১০০০০ ভিউ হলে কেবল তখনি আপনি আপনার চ্যানেলটি মোনেটাইজ করতে পারবেন অর্থাৎ আপনার চ্যানেলে আপলোড করা ভিডিওতে এড যুক্ত করে আয় করতে পারবেন। তবে গত ১৭ জানুয়ারি ইউটিউব তাদের মোনেটাইজশন প্রক্রিয়াতে কিছু পরিবর্তন আনে। এর ফলে এখন আপনার চ্যানেলে শুধু ১০০০০ ভিউ দিয়ে আপনি আপনার চ্যানেলটি মোনেটাইজ করতে পারবেন না। চ্যানেল মোনেটাইজ করার জন্য ইউটিউব তাদের নতুন আপডেটে ৪টি শর্ত দিয়েছে। প্রথমত, আপনার চ্যানেলে কমপক্ষে ১০০০০ ভিউ হতে হবে, দ্বিতীয়ত, আপনার চ্যানেলে অবশ্যই ৪০০০ ঘণ্টা Watch-Time থাকতে হবে, তৃতীয়ত, আপনার চ্যানেলে কমপক্ষে ১০০০ Subscribers থাকতে হবে এবং ৪র্থ শর্ত হল অনেকটা এরকম যে আপনাকে উপরের ৩টি শর্ত অবশ্যই আপনার চ্যানেলটি খোলার ১ বছরের মধ্যে পূরণ করতে হবে। এ ৪টি শর্ত পূরণ না করা পর্যন্ত আপনি আপনার চ্যানেলটি মোনেটাইজ করতে পারবেন না। তাছাড়া আপনি যদি আপনার চ্যানেলটি খোলার ১ বছরের মধ্যে ১ম ৩টি শর্ত পূরণ করতে না পারেন তাহলে আপনার চ্যানেলটি আপনি আর কখনো মোনেটাইজ করতে পারবেন না।

তাছাড়া নতুন এ আপডেটটি নতুন ও পুরাতন সব ইউটিউবারদের জন্য প্রযোজ্য। পুরাতন যেসব ইউটিউবাররা এখনো তাদের চ্যানেলে মোনেটাইজেশন চালু করতে পারেন নি তারা উপরোক্ত ৪টি শর্ত পূরণ না করা পর্যন্ত মোনেটাইজেশন চালু করতে পারবেন না। আর যেসকল পুরাতন ইউটিউবার নতুন এ আপডেট আসার আগে ১০০০০ ভিউ এর মাধ্যমে তাদের চ্যানেলে মোনেটাইজেশন চালু করেছেন কিন্তু ১০০০ সাবস্ক্রাইবার পূরণ করতে পারেন নি কিংবা ৪০০০ ঘণ্টা ওয়াচ-টাইম সম্পূর্ণ করতে পারেন নি তাদের আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় দিয়েছে ইউটিউব। ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে পুরাতন ইউটিউবাররা যদি ১০০০ সাবস্ক্রাইবার ও ৪০০০ ঘণ্টা ওয়াচ-টাইম সম্পূর্ণ করতে না পারেন তাহলে তাদের চ্যানেলে মোনেটাইজেশন বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার ও ৪০০০ ঘণ্টা ওয়াচ-টাইম সম্পূর্ণ করার পর তাদের চ্যানেলে আবার স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোনেটাইজেশন চালু করা হবে।

নতুন আপডেট কি ইউটিউবারদের জন্য ভাল? নাকি খারাপ?

আমাদের অনেকেরই মনে হতে পারে যে নতুন এ আপডেটে নতুন ও পুরাতন ইউটিউবারদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। আসলে কিন্তু তা নয়। নতুন এ আপডেটে কিন্তু ইউটিউবারদের জন্য অনেক ভাল হয়েছে, বিশেষ করে যারা Original Content তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড দিচ্ছেন তাদের জন্য। এর কারণ হল নতুন এ আপডেটের কারণে অনেক ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ হয়ে যাবে যেগুলো অন্যের ভিডিও কপি করে ইউটিউবে আপলোড দিত কিংবা নিম্ন মানের ভিডিও আপলোড দিত। ফলে যারা অরিজিনাল কন্টেন্ট তৈরি করে ভিডিও আপলোড করছেন তারা ধীরে ধীরে তাদের চ্যানেলে ভিউয়ার পাবেন এবং তাদের চ্যানেল ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাবে। আপনি যদি অরিজিনাল কন্টেন্ট তৈরি করেন এবং নিয়মিতভাবে ইউটিউবে কন্টেন্ট আপলোড দেন তাহলে আপনি ১ বছর সময়ের মধ্যে খুব সহজেই ১০০০০ ভিউ, ৪০০০ ঘণ্টা ওয়াচ-টাইম ও ১০০০ সাবস্ক্রাইবার পেয়ে যাবেন।

পোস্টটি সম্পর্কে যেকোনো মন্তব্য ও প্রশ্ন আমাদের জানাতে নিচের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন।

4 টি মন্তব্য

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.