notunBLOG
নতুনBlog » বাছাইকৃত » এডসেন্স এবং তার আদ্যোপন্ত – পর্ব ৩ (এড্রেস ভেরিফিকেশন)

এডসেন্স এবং তার আদ্যোপন্ত – পর্ব ৩ (এড্রেস ভেরিফিকেশন)

পূর্ববর্তী পোস্টে আপনারা কিভাবে হোস্টেড এডসেন্স একাউন্ট ও নন-হোস্টেড এডসেন্স একাউন্ট খুলতে হয় তা জানতে পেরেছেন। যারা পূর্বের পোস্টগুলো পড়েন নি তারা সেগুলো পড়ে নিবেন।

দেখে নিন –

আজকের পোস্টে আপনারা জানতে পারবেন যে কিভাবে এডসেন্স একাউন্টের এড্রেস ভেরিফিকেশন/পিন ভেরিফিকেশন করতে হয়।




Google AdSense

গুগল এডসেন্স একাউন্ট সফলভাবে খোলার পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল আপনার এড্রেস ভেরিফাই করা। এক্ষেত্রে গুগল এডসেন্স আপনার এডসেন্স একাউন্টে দেওয়া বাসার ঠিকানায় আপনাকে একটি পিন মেইলের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেয়। এ মেইলটি পাওয়ার পর আপনাকে এই পিনটি গুগল এডসেন্স এর কাছে Submit করতে হয়। এটি সাবমিট সফল হলে আপনার এড্রেসটি ভেরিফাই হয়ে গেল। একটি পিন মেইলের মাধ্যমে পাঠিয়ে এড্রেস ভেরিফাই করা হয় বলে এ প্রক্রিয়াকে পিন ভেরিফিকেশনও বলা হয়।

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক যে কিভাবে আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্টের এড্রেস ভেরিফাই করবেন।

এড্রেস/পিন ভেরিফিকেশন

আপনার এডসেন্স একাউন্টের এড্রেস ভেরিফাই করার জন্য আপনাকে প্রথমেই আপনার এডসেন্স একাউন্টে সাইন ইন করতে হবে। সাইন ইন করার পর আপনি নিচের মত একটি পেইজ দেখতে পাবেন।




এখানে আপনি লাল রঙ এর একটি Label দেখতে পাবেন যার মধ্যে লেখা থাকবে ‘Your payments are currently on hold because you have not verified your address’। অর্থাৎ আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্ট খোলার সময় এডসেন্সকে দেওয়া এড্রেসটি এখনো ভেরিফাই না করায় আপনার একাউন্টে জমা হওয়া টাকা আপনি তুলতে পারবেন না। এড্রেস ভেরিফাই করার পরপরই আপনি আপনার এডসেন্সে জমা হওয়া টাকা তুলতে পারবেন। তবে আপনি আপনার এড্রেসটি তখনই ভেরিফাই করতে পারবেন যখন আপনার এডসেন্স একাউন্টে কমপক্ষে ১০$ থাকবে। ১০$ জমা না হওয়া পর্যন্ত আপনি আপনার এড্রেস ভেরিফাই করতে পারবেন না। ১০$ জমা হলে গুগল এডসেন্স নিজে থেকেই আপনার এডসেন্স একাউন্টের জন্য একটি পিন জেনেরেট করে আর তা আপনার দেওয়া এড্রেসে পাঠিয়ে দেয়। মাঝে মাঝে একাউন্টে ১০$ হওয়া স্বত্তেও এডসেন্স অটোমেটিকেলি পিন জেনেরেট করে তা একাউন্টহোল্ডারের এড্রেসে পাঠায় না। যদি কোনো কারণে এমনটা হয় তাহলে আপনাকে পিন নিজের একাউন্টে সাইন ইন করে পিন জেনেরেট করতে হবে। ‘Your payments are currently on hold because you have not verified your address’ এ লেখাটির পাশে একটি Action নামের বাটন দেখতে পাবেন। এ বাটনটিতে আপনাকে ক্লিক করতে হবে। এ বাটনটিতে ক্লিক করলে আপনাকে নিচের মত একটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে যেখানে আপনাকে জানানো হবে যে আপনার দেওয়া ঠিকানায় পিনটি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও থাকবে Pin Generate করার তারিখ ও সময় এবং আপনাকে পিনটি যে মেইলে করে পাঠানো হবে তার একটি ছবিও দেয়া থাকবে আপনার সুবিধার্থে।




সাধারণভাবে এডসেন্স পিন মেইল আসতে বেশ কিছু দিন সময় লাগে। মূলত একেক দেশের জন্য এ সময়টি একেক রকম। তবে বাংলাদেশে এ মেইলটি আসতে ৭-১০ দিন সময় লেগে থাকে। এডসেন্স থেকে পাঠানো পিন মেইলটি দেখতে এরকম হয়ে থাকে।




এ মেইলের ভেতরে যে পিনটি রয়েছে সেটি আপনাকে এডসেন্সের নিকট পাঠাতে হবে। পিনটি দেখতে অনেকটা এরকম হয়ে থাকে।

পিনটি Submit করার জন্য আপনাকে এডসেন্সে সাইন ইন করে View More>Pin Verification Card>Verify এ ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনাকে নতুন একটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে এখানে Enter Your Pin এ আপনার মেইলে পাওয়া পিনটি দিয়ে Submit বাটনে ক্লিক করবেন। সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনাকে পরবর্তী পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে যেখানে আপনাকে জানানো হবে যে আপনার এড্রেস ভেরিফিকেশন সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এভাবে আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্টটি ভেরিফাই করে নিবেন। এ ভেরিফিকেশনটি শুধুমাত্র একবার সম্পন্ন করতে হয় আর এটি সঠিকভাবে সম্পন্ন করার পর আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্ট থেকে অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন।

পিন মেইলিং সংক্রান্ত কিছু সমস্যা

এডসেন্স আপনার এড্রেস ভেরিফাই করার জন্য আপনার দেওয়া ঠিকানায় একটি মেইল পঠিয়ে থাকে যার মধ্যে থাকে একটি পিন যেটি দিয়ে আপনি আপনার এড্রেসটি ভেরিফাই করবেন।কিন্ত্য মাঝে মাঝে কিছু সমস্যার কারণে মেইলটি আপনার এড্রেসে পৌছাতে পারে না। এর উল্লেখযোগ্য কিছু কারণ হল –




  1. এডসেন্স একাউন্ট খোলার সময় আপনার ঠিকানা ঠিকমত না দেওয়া।
  2. আপনার বাসা পরিবর্তন করা।
  3. কোনো কারণে পোস্ট অফিস হতে আপনার বাসায় মেইলটি ডেলিভার না করা।

যদি Pin Request করার ৩০ দিনের মধ্যে আপনার বাসায় মেইলটি না আসে তাহলে প্রথমেই দেখবেন যে এর জন্য উপরের ১ ও ২ নং কারণ দায়ী কিনা। উল্লেখ্য যে গুগল এডসেন্স হতে পিন মেইলটি আসতে সর্বোচ্চ ৩০ দিন সময় লাগে। তাই আপনি পিন জেনেরেট করার পর সর্বোচ্চ ৩০ দিন পর্যন্ত অবশ্যই অপেক্ষা করবেন। যদি তা হয় তাহলে আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্টে সাইন ইন করে Settings>Payments>Manage Setting>Name and Address সেকশনে গিয়ে আপনার এড্রেসটি ঠিক করে নিবেন। যদি ১ ও ২ নং কারণ দায়ী না থাকে তাহলে অবশ্যই ৩ নং কারণ আপনার এড্রেসে মেইল না আসার জন্য দায়ী। উল্লেখ্য যে, এডসেন্স সাধারণ মেইল অর্থাৎ সরকারী পোস্টের মাধ্যমে সকল মেইল তার একাউন্ট হোল্ডারদের নিকট পাঠিয়ে থাকে। অর্থাৎ বাংলাদেশে আপনার কাছে মেইলটি আসবে বাংলাদেশ পোস্ট এর মাধ্যমে। এক্ষেত্রে দেখা যায় যে অনেক পোস্ট অফিস এ ধরণের মেইল পোস্ট করে না। বরং নিজেদের কাছে রেখে দেয়। আপনি যতক্ষণ না পর্যন্ত আপনার এলাকার পোস্ট অফিসে গিয়ে মেইলটি সংগ্রহ ততক্ষণ পর্যন্ত এরা মেইলটি আপনাকে দিবে না। তাই এক্ষেত্রে আপনি একবার আপনার এলাকার পোস্ট অফিসে গিয়ে দেখবেন যে মেইলটি এসেছে কিনা। যদি মেইলটি এসে যায় তাহলে আপনি মেইলটি সঙ্গগ্রহ করে নিবেন। আর যদি মেইলটি না আসে তাহলে আপনি এডসেন্স এর নিকট একটি নতুন পিন মেইল করার জন্য বলবেন। এ জন্য আপনাকে এডসেন্সে সাইন ইন করার পর View More>Pin Verification Card>Verify এ ক্লিক করবেন। ক্লিক করার পর আপনাকে নতুন একটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে। এখানে Resend Pin এ ক্লিক করলে এডসেন্স আপনার জন্য নতুন একটি পিন তৈরি করে তা মেইল করবে।

এক মিনিটের জন্য ধরে নেওয়া যাক যে এবারও মেইলটি কোনো কারণে আসলো না। তাহলে কি উপায়? এক্ষেত্রে আপনি উপরের নিয়মে আরও একবার রিসেন্ড পিন এর জন্য Apply করতে পারবেন। তবে মনে রাখবেন যে এটিই কিন্তু শেষ সুযোগ। এর পর আপনি আর পিনের জন্য এপ্লাই করতে পারবেন না।




Resend Pin এর জন্য Apply করার পর যদি পুরাতন মেইলটি চলে আসে তখন কি করতে হবে?

ধরুন যে, আপনি ১ম বার মেইলটি পান নি। ৩০ দিন অপেক্ষা করার পরও মেইলটি না আসায় আপনি রিসেন্ড পিন এর জন্য এপ্লাই করেন এবং এডসেন্স আপনার ঠিকানার উদ্দেশ্যে নতুন মেইলটি মেইল করে দিল। কিন্তু পিন রিসেন্ড করার পরের দিনই হঠাৎ পুরাতন পিনটি আপনার কাছে চলে আসল। তখন আপনি কি করবেন।

পিন রিসেন্ড করার পর আপনার কাছে পুরাতন মেইলটি আসলে আপনি পুরাতন মেইলের পিনটি সাবমিট করে দিবেন। এতে কোনো সমস্যা হবে না। কেননা নতুন পিন তৈরি করার পরও এডসেন্স পুরাতন পিনটিও Accept করে। এটি এডসেন্স এর একটি সুবিধা। ধরুণ ১ম ও ২য় বার আপনি মেইল না পাওয়ায় ৩য় বার আপনি পিন রিসেন্ড করলেন তখন দেখলেন যে এবার হয় সব মেইল একসাথে চলে এসেছে কিংবা যেকোনো ২টি মেইল এসেছে কিংবা নতুন মেইলটি না এসে পুরাতন যেকোনো একটি মেইল এসেছে তাহলে আপনি যে মেইলটি পেয়েছেন সেটি সাবমিট করে দিবেন। সেটি পুরাতন হোক কিংবা নতুন হোক তাতে এডসেন্সের কিছু যায় আসে না।

আপনার জন্য যে পিনটি বা পিনগুলো তৈরি করা হয়েছে সেটি কিংবা সেগুলোর মধ্যে যেকোন একটি আপনি সাবমিট করলেই হল।




অনেক সময় দেখা যায় যে বিভিন্ন কারণে আপনার কাছে এডসেন্স থেকে মেইলটি আসা সম্ভব হচ্ছে না। আপনি ১ম বার মেইল না পাওয়ায় আপনি ২য় বার পিন রিকুয়েস্ট করলেন কিন্তু তাও আপনি পিন না পাওয়ায় ৩য় বার চেষ্টা করলেন। কিন্তু এবারও মেইল আসলো না আপনার কাছে। এ ধরণের ঘটনা আগেও অনেক এডসেন্স একাউন্টহোল্ডারদের সাথে ঘটেছে। তাই গুগল আপনার এড্রেস ভেরিফাই করার জন্য আরেকটি পন্থা ব্যবহার করে থাকে। তবে আপনি প্রথমেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি আপনার পিন ভেরিফিকেশন পরপর ৩ বার ব্যর্থ হয় তাহলেই আপনি এটি ব্যবহার করতে পারবেন। এটি সম্পর্কে পরবর্তী পোস্টে জানানো হবে।

2 টি মন্তব্য

জানুন সবার আগে

বিশ্বে ঘটে যাওয়া যেকোন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেতে আপনার ইমেইল এড্রেস লিখে ফেলুন

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

সংযুক্ত থাকুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।