নগ্ন হয়ে ফেসবুক অফিসের সামনে বিক্ষোভ

নিউইয়র্কে ফেইসবুকের প্রধান অফিসের সামনে শতাধিক নারী-পুরুষ নগ্ন হয়ে বিক্ষোভ করেছেন।

ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রামে নগ্নতার কনটেন্ট নিয়ে কঠোর অবস্থানে গেলে এই বিক্ষোভে অংশ নেন সেসব বিক্ষোভকারীরা। তারা বিক্ষোভ থেকে মাধ্যম দুটির নীতিমালা আরও শিথিল করার দাবি করেন।

রোববার বিক্ষোভকারীরা নগ্ন হয়ে রাস্তায় শুয়ে পড়ে। সেখান থেকে তারা দাবি জানান নগ্নতাকে এতো কঠোর করে দমন না করতে।

হ্যাশট্যাগ উইদানিপল নামের আন্দোলনটি আন্তর্জাতিকভাবে প্রখ্যাত আমেরিকান আর্টিস্ট স্পেন্সার টুনিক এবং ন্যাশনাল কোয়ালিশন এগেইনেস্ট সেন্সরশিপ নেতৃত্ব দিচ্ছে।

এছাড়াও নারীদের অধিকার সংরক্ষণের একটি সংগঠন ‘গ্র্যাব দেম’ এর একটি অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।

ওই গ্রুপটি ফেইসবুক ও ইনস্টাগ্রামকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেছে, নারীদের যেসব ছবি নিয়ে আপত্তি উঠেছে সেগুলো নগ্ন নয়, সেগুলো শিল্পসম্মত।

এর আগে মা দিবসে একটি স্থিরচিত্র প্রকাশ করলে ফেইসবুক সেটাকে নগ্তা আখ্যা দিয়ে তা সরিয়ে নেয়। এরপর থেকেই ফেইসবুকের বিরুদ্ধে গ্রুপটি সক্রিয় হতে থাকে।

ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অনেক কারণেই এবং অবস্থাতেই মানুষ শিল্পসম্মত নগ্নতা প্রকাশ করে। কিন্তু সেগুলো অনেক সময়ই আমাদের কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ডে যায় না। ফলে সেগুলো সরিয়ে দেয়া হয়।

ফেইসবুকও জানিয়েছে, তাদের নীতিমালা ভঙ্গ করে এমন কিছু তারা ফেইসবুকে রাখতে চায় না।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।