NotunBlog
নতুনBlog » বিবিধ » ব্লগস্পট ব্যবহার করে ফ্রিতে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করুন

ব্লগস্পট ব্যবহার করে ফ্রিতে একটি ব্লগ সাইট তৈরি করুন

কটি ব্লগ থাকা নিশ্চয় খুবই সৌভাগ্যের বিষয় কারন আপনি যেকোন মূহুর্তে নিজের বক্তব্য সকলের কাছে তুলে ধরতে পারেন। এছাড়া আপনি যদি একটু চতুর প্রকৃতির হয়ে থাকেন তাহলে খুব সহজেই আপনি একটা ভালো এমাউন্ট বা অর্থ উপার্জন করে ফেলতে পারেন।

নতুনব্লগে এর আগে আমি আরো একটি ব্লগিং ক্ষেত্র নিয়ে কথা বলেছি যেটি হলো ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে ব্লগিং শুরু করা। আমি আপনাকে সাজেস্ট করবো নিজের ব্লগ  ওয়ার্ডপ্রেসের সাহায্যে নিজের হোস্টিং এবং ডোমেইন ব্যবহার করে তৈরি করতে।

এই ব্যাপারে আমি হোস্টিং বাছাইয়ের পাতায় অনেকবার বলেছি। এও বলেছিলাম যে, ফ্রিতে ব্লগিং শুরু করতে চাইলে হয়ত ব্লগার নতুবা ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করতে।

যাইহোক অনেক নতুন ব্লগার তাদের ব্লগ ফ্রি তে হোস্ট করতে চান। কেননা তাদের মূলধন বা অর্থ না থাকায়। কিন্তু নিজের সাইট চালাতে বছরে এত বেশি মূল্যও দিতে হয় না।

যাই হোক এমন অনেক ব্লগিং প্লাটফর্ম রয়েছে যা আপনাকে ফ্রিতে ব্লগ বানানোর সুযোগ দেয়। আপনি যদি সিম্পল ব্লগ বানানোর কথা চিন্তা করেন তাহলে আমি বলবো ওয়ার্ডপ্রেস.কম বা ব্লগস্পট.কম প্লাটফর্ম বাছাই করে নেওয়ার জন্য।

আপনি একবার এসব ফ্রি প্লাটফর্ম থেকে অভিজ্ঞতা লাভ করে নিজের ব্লগ নিজেই ওয়ার্ডপ্রেস.ORG ব্যবহার করে শুরু করার পরামর্শ দি আমরা। কেননা এতে আপনার ব্লগের উপর নিজের হস্তক্ষেপ বেশি থাকবে । ফ্রি ব্লগে আপনার হস্তক্ষেপ কম থাকে ফ্রি প্রোভাইডারের বেশি থাকে। যা আশা করি আপনি চান না।

ব্লগস্পট ফ্রিতে ব্লগ খোলার সুযোগ দিয়ে থাকে। অবশ্য এতে কিছু লিমিটেশন থাকে ।

যাই হোক, যেমনটা আমি বলেছি এই আর্টিকেল যারা নতুন ব্লগিং শুরু করবেন ভাবছেন (অভিজ্ঞতা লাভের জন্য) একমাত্র তাদের জন্য।

ব্লগস্পট

এই আর্টিকেল নতুনদের জন্য উৎসর্গ করলাম। বিশেষ করে যাদের ব্লগিং এর প্রতি আগ্রহ রয়েছে এবং যারা আসলেই কিছু শিখতে চান।

আর্টিকেল টি শুরু করার আগে আপনাকে কয়েকটি বিষয় অবশ্যই জানতে হবে।

  • প্রথমত, ব্লগস্পট একটি ব্লগিং প্লাটফর্ম যা নিয়ে এসেছে গুগল। এটি আপনাকে একটি ব্লগ তৈরির সুযোগ দেয়। কিন্তু আপনার সমস্ত ছবি Picasa দ্বারা হোস্ট করা হবে (Picasa গুগলের সার্ভিস)। এই সেন্সে ব্লগস্পট ব্লগকে গুগলকেন্দ্রিক বলা যায়।
  • দ্বিতীয়ত আপনি যদি আয় করার জন্য ব্লগ শুরু করতে চান তাহলে আমি আপনাকে বারবার করে বলছি আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে ব্লগিং শুরু করুন।  আমাদের গাইড ফলো করে মাত্র ৩০ মিনিটেই আপনি ব্লগ বানিয়ে ফেলতে পারেন।

ধাপে ধাপে ব্লগস্পট ব্লগ শুরু করার কৌশল

ব্লগস্পটে ব্লগ সাইট খুলতে হলে সবার প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে Blogspot.Com এবং সেখানে আপনার গুগল একাউন্ট দিয়ে লগিন করতে হবে। গুগল একাউন্ট না থাকলে সেটি বানিয়ে নিন।

প্রথমবার আপনাকে তারা দুইটি অপশন দেখাবে যে,  আপনি কোন প্রোফাইল ব্যবহার করতে চান গুগল প্লাস প্রোফাইল নাকি লিমিটেড ব্লগস্পট প্রোফাইল? আমি আপনাকে গুগল প্লাস প্রোফাইল সিলেক্ট করার পরামর্শ দিবো।

আপনি লগিন হয়ে গেলে সেখান হতে “New Blog” বাটনে ক্লিক করুন বা নিচের লিংকে ক্লিক করুন ফ্রি ব্লগ তৈরি করুন

ব্লগের নাম দিন

সবার প্রথমেই আপনাকে ডোমেইন নাম সিলেক্ট করতে বলা হবে। এখানে আপনার নিজের নাম দেওয়া হতে বিরত থাকুন। ডোমেইন নাম হতে হবে ইউনিক। এই বিষয়ে বিশদ জানতে কমেন্ট করুন।

আপনি যেকোন ব্লগ টেম্পলেট সিলেক্ট করতে পারেন(পরে আবার পাল্টাতে পারবেন)। এরপর Create Blog বাটনে ক্লিক করুন।

ব্লগস্পট ব্লগ

আপনার ব্লগ তৈরি হয়ে গেছে। কিন্তু কাজ এখনো শেষ হয়নি। নতুন ব্লগস্পট সাইটে আপনাকে কিছু সেটিংস ঠিক করে নিতে হবে।

আপনাকে ব্লগস্পট ড্যাশবোর্ডে নেওয়া হবে। সেখান থেকে সেটিংস এ গিয়ে ব্লগের ভিজিবিলিটি ঠিক করতে হবে

স্ক্রিনশট টি লক্ষ্য করুন

Blogspot Dashboard

এখান থেকে “Posts” > “New post” ক্লিক করতে হবে। এরপর আপনি লেখালেখি বা ব্লগিং শুরু করতে পারবেন।

কিন্তু সবার আগে আমি আপনাকে উপদেশ প্রদান করবো “Pages” এ গিয়ে অন্তত্য একটি পেইজ তৈরি করতে। সেটি হতে পারে About Us পেইজ।

নতুন ব্লগ লেখার আগে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ব্লগের টেম্পলেট চেইঞ্জ করা।  আমার মতে ডিফল্ট টেম্পলেট খুবই বোরিং।

টেম্পলেট পাল্টানোর জন্য যেতে হবে “Settings” > “Template” এখান থেকে আপনি টেম্পলেট পালটে ফেলতে পারেন।

এখানে আপনি লোগো যুক্ত করার অপশন দেখতে পাবেন। এছাড়া নতুন নতুন অনেক অপশন যুক্ত করতে পারবেন।

কিছু ব্লগ পোষ্ট বানানো হয়ে গেলে আপনি সেটিংস হতে এডসেন্স চালু করে আপনার ব্লগ হতে আয় করা শুরু করতে পারেন।

আপনার ব্লগ তৈরি হয়ে গেছে। এখন আপনি চাইলে অনান্য ফিচারগুলো দেখে আরো শিখতে পারেন।

নোটঃ এই আর্টিকেল তাদের জন্য যারা ব্লগ শুরু করতে চায় এবং যারা ব্লগ বানাতে পারে না।

সত্যি বলতে আমি নিজেও প্রথমে ব্লগস্পট ব্যবহার করে ব্লগিং শুরু করি। এরপর আমি ওয়ার্ডপ্রেসে স্থানান্তরিত হয়। আপনার ব্লগকে প্রোফেশনাল করে তুলতে ওয়ার্ডপ্রেসের কোন বিকল্প নেই। আপনি চাইলে ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ বানানোর গাইডটি দেখে নিতে পারেন।

আমাদের আর্টিকেল যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে ফেইসবুক এবং টুইটারে শেয়ার করতে পারেন এবং প্রতিদিন আপডেট পেতে চাইলে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক করে রাখতে পারেন। 

আকাশ

বিশাল বিশাল স্বপ্ন সাথে শূন্য বিনিয়োগ, সফলতা কি সম্ভব?

3 টি মন্তব্য

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

adipiscing justo elit. pulvinar odio Lorem Donec venenatis, efficitur.