শাওমি সম্পর্কে অজানা দশটি চ্যাঞ্চল্যকর তথ্য

আমাদের চোখের সামনেই প্রতিনিয়ত প্রযুক্তির বিপ্লব ঘটে চলেছে। নকিয়া,  স্যামসাং, শাওমি থেকে শুরু করে আইফোন এই বিপ্লবেরই একটি উদাহরণ বলা যায়।

অনেকগুলো ব্রান্ড কিন্তু এখন উঠে এসেছে এবং তারা খুব দ্রতই সাফল্য লাভ করেছে এবং এখনো এই প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের মধ্যেও টিকে আছে।

শাওমি ব্রান্ড তার মধ্যে একটি। যদিও আপনি অস্বীকার করতে পারবেন না যে, শাওমি -র সাফল্যের সবচেয়ে বড় কারণটি হলো তাদের সাশ্রয়ী দাম এবং এই ব্রান্ডের সাশ্রয়ী দামই এটিকে বাজারে টিকেয়ে রেখেছে।

আরও দেখুনঃ

এই ব্রান্ডের এমন কিছু অজানা দিক আছে যা আপনি ধারনাও করতে পারবেন না। এবং এই অজানা দিকগুলো সামনে আনার জন্যই এই আর্টিকেল।

১) শাওমি নাম

শাওমির আক্ষরিক অর্থ হলো ভূট্টা এবং চাল,  এটি বৌদ্ধ ধর্মাবলীদের একটি টার্মকে নির্দেশ করে। এটা বোঝায় যে, বড় লক্ষ্য অর্জনের আগে শাওমি ছোট লক্ষ্য থেকে শুরু করতে চায়।

এছাড়া মিশন ইমপসিবল আর এমআই(Mi) মিল রয়েছে বৈকি। এখানে অবশ্য মিশন ইম্পসিবল মুভির কথা বলিনি। তাদের সামনের বাধাগুলো তারা খুব সুন্দর ভাবেই তারা পসিবল করেছে।

২) চায়নার অ্যাপল

শাওমি কে চায়নার অ্যাপল বলা হয়। কারন শাওমিতে ঠিক অ্যাপলের মতই সিম্পল ডিজাইন লক্ষ্য করা যায়। অ্যাপল যেমন মাতিয়ে রেখেছে ইউএসকে ঠিক তেমনি শাওমি মাতিয়ে রেখেছে চায়নাকে।

৩) দ্যা ম্যাসকট

শাওমি -র ম্যাসকট মিতু নামে একটি বানি যা একটি উশঙ্কা (লেই ফেন হ্যাট) পরে থাকে । এমআই বানি এর ক্যাপ একটি লাল তারা আছে এবং এটি তার ঘাড়ে একটি লাল স্কার্ফ পরে। অদ্ভুদ সুন্দর।

৪) দোকানপাট

পুরো বিশ্বে সিংগাপুর এবং চায়না ছাড়া শাওমির নিজস্ব কোন দোকানপাট নেই।  তারা তাদের বেচাবিক্রি অনলাইনে করার কারনে তারা তাদের অতিরিক্ত খরচ বেঁচ যায়, যার কারনে তারা তাদের প্রোডাক্টের দাম সবার হাতের নাগালে রাখতে সক্ষম।

৫) বিজ্ঞাপন

তাদের দোকানপাট যেমন নেই তেমনি শাওমি অফিসিয়ালি কোন বিজ্ঞাপনও এখন পর্যন্ত দেয়নি। কোন টিভি চ্যানেলেও কিন্তু শাওমির কোন বিজ্ঞাপন দেখা যায়নি। এরপরেও তারা কিন্তু তাদের প্রোডাক্ট বিক্রি বন্ধ হয়ে থাকেনি।

৬) গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

শাওমি -র এমআই৩(Mi3) ভারতে প্রতি দুই সেকেন্ডে ১৫০০০ বার বিক্রি হয়েছে। দুই সেকেন্ড বুঝেন ভাই? শাওমির এমআই৩ ছিলি রিলিজকালে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুততম স্মার্টফোন। এছাড়াও ২০১৪ সালে এক দিনে ২.১ মিলিয়ন স্মার্টফোন বিক্রি করে শাওমি জায়গা করে নিয়েছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে।

৭) গুগলের কানেকশন

শাওমির শীর্ষ নয়টি নেতৃত্বের মধ্যে তিনজন হলেন প্রাক্তন গুগলার। এখানে তাদের কোন কারসাজি নেই তো? আমরা সবাই জানি যে তারা প্রতিভাবান, এবং শাওমির সাফল্যের পিছনে তাদের ভূমিকাও রয়েছে বেশ।

৮) বিল্ড-ইন ক্যামেরা টেকনোলজি

অদ্ভুদরকমভাবে, শাওমির বিল্ড-ইন ক্যামেরা তাদের প্রোডাক্টকে করে তুলেছে বেশি আকর্ষণীয়। সেলফি তুলতে পছন্দ করেন? শাওমি সাথে থাকলে ক্যামেরা নিয়ে ভাবার প্রয়োজন পড়ে না। সেলফি তুলুন ইন্সটাগ্রামে আপ দিন।  

৯) সিংগাপুরে আন্তর্জাতিক হেডকোয়াটার

শাওমি তাদের হেডকোয়াটারের জন্য বেছে নিয়েছে সিংগাপুরকে। সিংগাপুর একটি অত্যাধুনিক শহর, সেই শহরের প্রযুক্তি ব্যবহার করে শাওমি তাদের গ্রাহকদের মানসম্পন্ন সেবা দিয়ে আসছে।

১০) লোগো কথা বলে

শাওমি
শাওমির লোগোর

অদ্ভুদকিছু জানতে চান? শাওমির লোগোর একটি অন্তর্নিহিত অর্থ রয়েছে। শাওমির লোগোটিকে উলটো করে দেখলেই যা বোঝা যাবে। চায়নিজ ভাষায় লেখা একটি শব্দ (“心”) আপনি দেখতে পাবেন। যার অর্থ হলো ইংলিশে হার্ট এবং বাংলায় হৃদয়

নামের অর্থ বোঝানোর জন্য এটি সত্যিই একটি উদ্ভাবনী নতুনত্য।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।