notunBLOG
নতুনBlog » প্রযুক্তি » শেষ হতে চলেছে ইউটিউবের একচেটিয়া ব্যবসা

শেষ হতে চলেছে ইউটিউবের একচেটিয়া ব্যবসা

পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম হল ইউটিউব, এ বিষয়ে আমাদের কারো মনে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম হওয়া স্বত্ত্বেও বিভিন্ন সময়ে ইউটিউবের নেওয়া বিভিন্ন সিদ্ধান্ত ও ঘন ঘন পলিসি পরিবর্তন করায় বিভিন্ন ইউটিউবার ও ভিউয়ারদের মনে ইউটিউবের প্রতি একপ্রকার বিরক্তি জন্মায়। কিন্তু ইউটিউব ছাড়া তেমন কোনো জনপ্রিয় ভিডিও প্লাটফর্ম না থাকায় আমরা এতদিন ধরে ইউটিউবের ওপর নির্ভরশীল ছিলাম। কিন্তু এখন সে দিন শেষ হতে চলেছে।

অনলাইন জগতে এ ঘটনা দুটো সকলকে অনেকটা চমকে দিয়েছিল, যখন Facebook ও Amazon তাদের নিজস্ব ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক যে কিভাবে ফেইসবুক ও আমাজন নামক দুটো Technology Giant তাদের নিজস্ব ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়।

Facebook for Creators

গত ডিসেম্বর মাসেই ফেইসবুক প্রথম তাদের ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম Facebook for Creators চালু করে। ইউটিউবের মত একটি ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করার পরিকল্পনা ফেইসবুকের অনেক দিন আগে থেকেই ছিল । আর এ পরিকল্পনাটি বাস্তবে রূপ লাভ করে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে যখন ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ প্রথমবারের মত তাদের ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মটি Content Creator দের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়।

ফেইসবুক ফর ক্রিয়েটরস

Facebook for Creators নামে একটি অ্যাপ ইতিমধ্যে IOS ডিভাইসের জন্য Apple App Store এ পাবলিশ করা হয়েছে। তবে এ অ্যাপটি এখনো Android এর জন্য পাবলিশ করা হয় নি এবং কবে নাগাদ এটি Play Store এ পাবলিশ করা হবে তা জানানো হয় নি। তাই যেসকল কন্টেন্ট ক্রিয়েটররা ইউটিউবে তেমন সাফল্য অর্জন করতে পারেন নি তারা চাইলে নতুন এ ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মে কন্টেন্ট আপলোড করতে পারবেন। তবে এ প্লাটফর্মে এখনি আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন না কারণ এটি এখনো পরীক্ষামূলক সংস্করণ হিসেবে রয়েছে। এখন শুধুমাত্র কন্টেন্ট ক্রিয়াটররা এ প্লাটফর্মে নিজেদের কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করতে পারছেন কিন্তু কন্টেন্ট আপলোড করতে পারছেন না।

এ প্লাটফর্মটি সম্পূর্ণরূপে কাজ করা শুরু করলে ফেইসবুকের পক্ষ থেকে ক্রিয়েটরদের ই-মেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। আপনারা চাইলে নিচে দেওয়া লিংক থেকে এ প্লাটফর্মে Join করতে পারেন।

  • https://www.facebook.com/creators

কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

ফেইসবুকের পক্ষ থেকে একটি বিষয় পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, Facebook for Creators প্লাটফর্মে আপলোড করা কন্টেন্টগুলো Unique হতে হবে এবং সে কন্টেন্টগুলো অন্য কোনো ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মে থাকতে পারবে না। অর্থাৎ আপনি যদি একইসাথে Facebook for Creators এবং YouTube দুটোই পরিচালনা করেন, তাহলে আপনি এ দুটো প্লাটফর্মে একই কন্টেন্ট আপলোড দিতে পারবেন না। অর্থাৎ কোনো কন্টেন্ট আপনি যদি একইসাথে YouTube এবং Facebook for Creators এ আপলোড দেন তাহলে ফেইসবুক আপনার কন্টেন্টটির কপিরাইট ধরে আপনাকে Ban করতে পারে। একইরকম নিয়ম কিন্তু ইউটিউবেও চালু রয়েছে। তাই আপনাকে এ দুটো প্লাটফর্মের জন্য আলাদা আলাদা কন্টেন্ট তৈরি করতে হবে।

Amazon এর ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম

আপনারা জেনে হয়ত বা অবাক হবেন যে Amazon খুব শীঘ্রই তাদের নিজস্ব একটি ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে এ প্লাটফর্মটি চালু করার জন্য যাবতীয় কাজ শুরু হয়ে গেছে। আমাজনের কিন্তু কখনো কোনো ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করার পরিকল্পনা ছিল না। তাহলে হঠাৎ এ সিদ্ধান্ত কেন? এর উত্তরটা কিন্তু আরও অবাক করার মত। কেননা, গুগলের ওপর প্রতিশোধ নেওয়ার জন্যই আমাজন একটি ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়। যদি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্যই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকে তাহলে গুগলের সাথে আমাজনের শত্রুতা কিভাবে শুরু হল?

এমাজন লোগো

আমাজন আর গুগলের মধ্যে এ শত্রুতা শুরু হয় ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে যখন আমাজনের Echo Show এবং Fire TV, এ দুটো প্রোডাক্টে গুগল তাদের YouTube Streaming Service বন্ধ করে দেয়। এতে গুগলের ওপর খুব রাগান্বিত হয় আমাজন। আর এর মাধ্যমেই আমেরিকার এই দুই টেকনোলজি জায়েন্টের মধ্যে শত্রুতার সৃষ্টি হয়। বলা হচ্ছে যে, গুগলের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে আমাজন সেদিনই আমেরিকার প্যাটেন্ট রেজিস্ট্রি অফিস USPTO (United States Patent and Trademark Office) এ গিয়ে AmazonTube OpenTube এ দুটো নাম নিজেদের নামে ট্রেডমার্ক করে ফেলে।

সে একই দিনই আমাজন AlexaOpenTube.com, AmazonAlexaTube.com AmazonOpenTube.com নামে তিনটি ডোমেইন নেইম নিজেদের নামে রেজিস্ট্রেশন করে নেয়। তবে কোন নামে আমাজন তাদের ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মটি চালু করবে এবং উপরের তিনটি ওয়েবসাইটের মধ্যে কোন ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করা যাবে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায় নি। তবে বলা হচ্ছে যে আগামী ৩-৬ মাসের মধ্যে আমাজন তাদের ভিডিও প্লাটফর্মটি চালু করে ফেলবে।

এখন শুধু দেখার পালা যে, YouTube, Facebook আর Amazon এর মধ্যে কে শীর্ষে থাকতে পারে।

মন্তব্য করুন

জানুন সবার আগে

বিশ্বে ঘটে যাওয়া যেকোন চাঞ্চল্যকর তথ্য পেতে আপনার ইমেইল এড্রেস লিখে ফেলুন

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

সংযুক্ত থাকুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্ত থাকুন আমাদের সাথে।