কিভাবে সেরা ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং বাছাই করবেন?

প্রায় সময় দেখা যায়, একটা ওয়েবসাইটের সফলতার পেছনে সবচেয়ে বড় উপাদান হলো ওয়েবহোস্টিং। সেরা ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং বাছাই করে নিলে তা আপনার SEO তে বেশ বড় রকমের ভূমিকা রাখবে। এছাড়া আপনার প্রোডাক্ট বিক্রির সংখ্যাটাও কিন্তু বাড়িয়ে দিতে পারে। চারপাশ একটু লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন হোস্টিং অনেক ধরনের হয়ে থাকে যেমনঃ ফ্রি, শেয়ার্ড, ভিপিএস, ডেডিকেটেড এবং ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং। এই গাইডে আমি আপনাদের সাহায্য করবো কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য সেরা ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং বাছাই করবেন।

আপনারা জানেন নতুনব্লগ বাংলাদেশের একমাত্র ওয়েবসাইট যেখানে ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে সকল সমস্যার সমাধান দেওয়া হয়। এছাড়া সকল খুঁটিনাটি বিষয়ে আমরা আলোচনা করি। চেষ্টা করি সবকিছু সহজ করে বোঝাতে।

ঠিক তেমনি সবকিছু সহজ করার জন্য আমরা সেরা কিছু ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং যেগুলো একেবারে বাছাই করা তা নিয়ে আলোচনা করবো। এই হোস্টিং কোম্পানীগুলো আমাদের দেশের টপ লেভেলের কোম্পানি। যেখানে ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং নিয়ে প্রশ্ন আসে যেখানে তাদের কোয়ালিটি এবং সাপোর্ট এর বিকল্প একটিও নেই।

ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং -এ কি কি থাকা আবশ্যক?
আপনি শুনে খুবই অবাক হবেন যে, ওয়ার্ডপ্রেস খুবই হালকা গড়নের একটি স্ক্রিপ্ট। এবং প্রায় সব হোস্টিং এর সাথে এটি খাপ খাইয়ে নিতে পারে। এরপরেও কিছু জিনিস থাকা আবশ্যক তা নিম্নরূপঃ

  • পিএইচপি ভার্শন ৭ বা তার বেশি
  • মাইএসকিউএল ভার্শন ৫.৬ বা তার বেশি

ওয়ার্ডপ্রেস জনপ্রিয়তার জন্য বিভিন্ন ওয়েবহোস্টিং কোম্পানি এক ক্লিকে স্ক্রিপ্ট ইন্সটলের সুযোগ দেয়।

ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং
ছবি ক্রেডিটঃ ভিকটেজি
ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্রোভাইডার বাছাই করার সময় যে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং নির্বাচন করার সময় গতি, নিরাপত্তা এবং নির্ভরযোগ্যতার বিষয়গুলো বিবেচনায় আনা প্রয়োজন। মূলত, “আপনি কি চাচ্ছেন ” তাই হলো সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আপনার প্রয়োজন মোতাবেক ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং ক্রয় আপনার হাজার হাজার টাকা বাঁচিয়ে দিতে পারে।

কি ধরনের ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং আপনার প্রয়োজন?

যেমনটা আগে বলেছিলাম, আপনার সামনে হরেক রকমে ওয়েব হোস্টিং সার্ভিস রয়েছে। যেমনঃ ফ্রি হোস্টিং, শেয়ার্ড হোস্টিং, ভিপিএস, ডেডিকেটেড এবং ম্যানেজড হোস্টিং। প্রতিটি বিষয়ে আলোচনা করব এরপর আপনি বেছে নিন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী।

ফ্রি ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

হ্যাঁ, ফ্রি হোস্টিং এর অস্তিত্ব রয়েছে। কিন্তু প্রতিটি ফ্রি হোস্টিং এর কিছু না কিছু বাধা রয়েছেই। আপনি ফ্রি হোস্টিং এর অফার বিভিন্ন গ্রুপ বা ফোরামে দেখতে পাবেন। সাধারণত যেকোন একজন ব্যক্তি কাজটি করে থাকে। সে তার সার্ভর হতে ছোট ছোট টুকরো ফ্রি তে দিয়ে কিছু উপার্জন করে থাকে। ব্যাপারটা হয় কি? এত আপনার সাইটে ওদের এড বসাতে হয়। সে এবার আপনার সাইটে সেই এড বিক্রি করে উপার্জন করবে। সবচেয়ে খারাপ ব্যাপার হলো আপনি জানতেই পারবেন না কখন আপনার সাইট তারা বন্ধ করে দিবে। আপনার ওয়েবসাইট নিয়ে যদি আপনি সতর্ক হন তাহলে যেকোন মূল্যে

ফ্রি হোস্টিং ব্যবহার হতে বিরত থাকুন।

শেয়ার্ড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

একদম নতুনদের জন্য শেয়ার্ড হোস্টিং খুবই জনপ্রিয়। কারন এটি সাশ্রয়ী এবং শুরু করার জন্য বেশ ভালো একটি পছন্দ। শেয়ার্ড হোস্টিং একটি বিশাল সার্ভর যেই সার্ভারে অসংখ্য ছোটখাট ওয়েবসাইটকে যুক্ত করা হয়। এক সার্ভারে অনেকগুলো সাইট হোস্ট করাতে পারে বলে প্রোভাইডার খুব কম দামে হোস্টিং দিতে পারে। একটা বিষয় মাথায় রাখা জরুরী যে, যত দ্রুত আপনার সাইট গ্রো হবে আপনার খরচ কিন্তু বাড়বে।

আবারো বলছি ছোটখাট ব্লগার বা ওয়েবসাইটের জন্য একমাত্র শেয়ার্ড ওয়েব হোস্টিং ভালো শুরু।

ওয়ার্ডপ্রেস ভিপিএস হোস্টিং

ভার্চুয়াল প্রাইভেট সার্ভার (ভিপিএস) একটি ভার্চুয়াল মেশিন বোঝায় । এটি একটি পৃথক সার্ভার যা কম্পিউটারকে একাধিক সার্ভারে পৃথক গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তার সাথে ভাগ করে। যদিও এটি অন্য ব্যবহারকারীদের সাথে ভাগ করা হয় কিন্তু তারপরেও এট আপনাকে ডেডিকেটেড সার্ভারের মজা এনে দিবে। ভিপিএস হোস্টিং সিস্টেমে একই মেশিনে একাধিক সাইট থাকে যারা একে অন্যকে হস্তক্ষেপ করেনা। সাধারণ সার্ভারে একটি সাইট ডাউন হলে অন্যট ডাউন হয়ে যায়, কিন্তু ভিপিএস হোস্টিং সিস্টেমে এই ভয় নেই। কারন এখানে প্রতিটি সাইট স্বাধীনভাবে কাজ করে।

মিডিয়াম ট্রাফিকের ব্লগ, ডিজাইনার বা ডেভেলপারদের জন্য এটি সেরা।

ওয়ার্ডপ্রেস ডেডিকেটেড হোস্টিং

ডেডিকেটেড ওয়েব হোস্টিং এখন ছোট-বড় সকল ধরনের ব্যবসায়ের ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে যেহেতু এটা আপনাকে অনেক বেশি ফ্লেক্সিবিলিটি দিয়ে থাকে। এখানে একটা ইনফরমেশন ই যথেষ্ট “আপনি একাই ১০০০ জন শেয়ারড হোস্টিং ইউজার বা ১০ জন ভিপিএস ইউজার এর সুবিধা ভোগ করতে পারবেন”। একটা ভাল ডেডিকেটেড সার্ভার হোস্টিং এর মাধ্যমে আপনি লক্ষ লক্ষ ভিজিটর কে আপনার ওয়েবসাইট ব্রাউজ করার সুযোগ দিতে পারবেন। ডেডিকেটেড হোস্টিং এ আপনি সব কিছুই নিজের কন্ট্রোল এ রাখতে পারবেন।

ম্যানেজড ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং

হোস্টিং কোম্পানি নিজেই যদি সব অপারেটিং সিস্টেম/সফটওয়্যার ইনস্টল প্লাস দেখাশোনার কাজ করে তবে সেটাকে বলে ম্যানেজড হোস্টিং। তবে এই ম্যানেজ কিন্তু হোস্টিং কোম্পানী বিনা পয়সায় করে দিবে না। ম্যানেজ করার জন্য হোস্টিং কোম্পানীকে ৫০ ডলার থেকে শুরু করে কয়েকশত ডলার পর্যন্ত দিতে হতে পারে। এক্ষেত্রে আপনাকে কোন চিন্তা করতে হবে না। আপনার হোস্টিং কোম্পানী আপনার ওয়ার্ডপ্রেস অপ্টিমাইজেশন হতে শুরু করে সিকিউর রাখার সব দায়িত্ব তাদের।

এখন যেহেতু আপনি হোস্টিং সম্পর্ক নিয়ে সব জেনে গেছেন এখন আপনার সিন্ধান্ত নেওয়ার পালা আপনি কেমন ধরনের হোস্টিং বেছে নিবেন। আমরা প্রায় অনেক প্রোভাইডার হতে হোস্ট নিয়েছি এবং সাইটের ফাউন্ডার আকাশ নিজে আপনারদের জন্য কিছু হোস্টিং বাছাই করে দিয়েছেন।নিচের প্রতিটি হোস্টিং কোম্পানী বেশ সাপোর্টিভ এবং মানসম্পন্ন।

এক নজরে সেসব কোম্পানীদের দেখে নিন।

ব্লগিং শুরু করার জন্য সেরা স্টেপ বাই স্টেপ গাইড প্রথমে দেখে নিন

সেরা ওয়ার্ডপ্রেস হোস্টিং প্রোভাইডার

প্রথম স্থানে

xeonbd

একটি সেরা হোস্টিং কোম্পানী যাদের যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০০৫ এ। হোস্টিং এর ক্ষেত্রে এক নামে ব্রান্ড বলতে XEONBD এর তুলনা হয় না। XEONBD এর সাথে থাকলে ওয়েবসাইট ডাউন বা স্লো হয়ে যাওয়ার কোন চিন্তা থাকে না। এছাড়া নতুনব্লগ ইউজার হয়ে থাকলে আপনি পাবেন ডোমেইন নাম একেবারে ফ্রি। এছাড়া ২৪/৭ সাপোর্ট তো সাথে রয়েছেই।

দ্বিতীয় স্থানে

বাংলাদেশের সেরা প্রিমিয়াম ক্লাউড হোস্টিং কোম্পানী যাদের যাত্রা শুরু হয়েছে সম্প্রতিি। ক্লাউড হোস্টিং এর সবচেয়ে বড় সুবিধা হল স্কেলেবিলিটি। স্কেলেবিলিটি হল একটি ধারণা যেখানে অতিরিক্ত ট্রাফিকের সময় অটোমেটিক আপনার জন্য বরাদ্দকৃত রিসোর্স বাড়তে থাকবে। অর্থাৎ হঠাৎ যদি আপনার সাইটে ট্রাফিক স্পাইক করে, কোন কারণে প্রচুর ভিজিটর একই সময়ে প্রবেশ করে তখনও তাদের ক্লাউড ইনফ্রাস্ট্রাকচার এবং লোড ব্যালেন্সিং এর কারণে আপনি থাকবেন নিশ্চিন্ত। এছাড়া নতুনব্লগ ইউজার হয়ে থাকলে আপনি পাবেন ডোমেইন নাম একেবারে ফ্রি। এছাড়া ২৪/৭ সাপোর্ট তো সাথে রয়েছেই।

This is box title
Advertisement