NotunBlog
নতুনBlog » আমাদের সম্পর্কে

আমাদের সম্পর্কে

ই সাথে আমার পরিচয় হয় ২০০৯ সালের শেষের দিকে। তখনও মনে হয় ক্লাস ফাইভের গন্ডিও পেরোই নি। মাইক্রোম্যাক্স ডি সিরিজের একটা ফোনে ইন্টারনেটে পাওয়ার রেইঞ্জারের ছবি সার্চ করতাম।  মোবাইল ফোনের প্রতি একটা ঝোক ছিল। এই ছোট্ট ডিভাইসে এত আলোর ঝলকানি, বাটন টিপলে লেখা উঠা এত শত পাওয়ার রেঞ্জার্স-র ছবি কোথা থেকে আসে। এসব সত্যি খুব অবাক করতো।

আজ থেকে প্রায় ৮ বছর আগের কথা, নকিয়া ১১০০ মডেলের ফোনের ল্যাংগুয়েজ উলটো পালটা টিপে আরবি করে দিয়েছিলাম। খুব বকুনি খেয়েছিলাম। সময়টা ২০১০ সালের। অবশ্য পরে উলটা পালটা টিপে আবারো ইংলিশ করে ফেলেছিলাম। এবং ঠিক করার পর আমি মাইক্রোম্যাক্স ফোনে এবার পাওয়ার রেঞ্জার্সের ছবি খোঁজার বদলে কিভাবে ভাষা পাল্টাতে হয় সার্চ করে দেখেছিলাম এখানেই সব সমাধান আছে। অতি মাত্রায় অবাক করেছিল বিষয়গুলো। 

এরপর থেকে গুগল নিয়ে একটা আইডিয়া হয়ে যায়। এখানে কি নেই। যা লিখে সার্চ দিতাম তাই পেয়ে যেতাম। ও হ্যাঁ, গুগলের আগেই পরিচয় ঘটেছিল ফেইসবুকের সাথে। কয়েকবছর পার হওয়ার পর আমার চিন্তা আসে যে, এত শত পাওয়ার রেইঞ্জারের ছবি এবং আমার এত অজানা প্রশ্নের উত্তর কারা দেয়, কিভাবে দেয়?  এবার গুগল থেকে জানতে পারি ওয়েবসাইট কি? কেন? কিভাবে? পরিচয় ঘটেছিল Wapka -র সাথে।

এভাবেই শুরু হয়েছিল সবকিছু। ২০১২ সালের শেষের দিকে প্রথম নকিয়া সি ১-০১ ফোনের মাধ্যমে Wapka ব্যবহার করে একটা সাইটের স্ট্রাকচার দাড় করিয়েছিলাম যার নাম ছিল বিডিট্রিকজ। এরপর Wapka-র সীমাবদ্ধতা এবং বিভিন্ন ঝামেলার কারনে অনেকদিন বন্ধ ছিল এসব নিয়ে কাজ করা।

২০১৩ /১৪ সালে পরিচয় ঘটে পিএইচপির সাথে এরপর আস্তে আস্তে বিভিন্ন সিএমএসের সাথে। ব্লগস্পট, জুমলা,  ওয়ার্ডপ্রেস ইত্যাদির সাথে। মাঝের এই সময়টাই খুব বেশি রিসার্চ করেছিলাম।

২০১৪ সালের শেষে দাড় করিয়েছিলাম টিউনারজডবিডি.কম ব্লগ। একবছরের মধ্যে অনেক কিছু শিখে ছিলাম। এরপর আবারো হোস্টিং এবং ডোমেইনের ফান্ডিং সমস্যা এছাড়া একা সবকিছু চালিয়ে যাওয়াও সম্ভব ছিল না। ২০১৫-১৬ সালে কিছুই করি নি। মনে একটা বদ্ধমূল ধারনা জন্মেছিল যে,  একা এগিয়ে যাওয়া সম্ভব না আর আশে পাশে এসব বিষয়ে উৎসাহ দেওয়ার মানুষেরও খুব অভাব ছিল। 

২০১৬ সালে পরিচয় ঘটেছিল ঠিক এমন একজনের সাথে যার এসব বিষয়ে বেশ আগ্রহী আছে। মোবাশ্বির হোসেন,  ফ্রিল্যান্সের সফল গ্রাফিক্স ডিজাইনার। তার কথাগুলো সেদিন খুব দাগ কেটেছিল, অনলাইন মার্কেট প্লেস,  ফ্রিল্যান্সিং বিভিন্ন বিষয়ে কথা হয়। একটা সাহিত্যিক প্লার্টফর্ম উপহাস নিয়ে আমরা কাজ করি। সাথে জুড়ে যায় কিছু টেক ফ্রিক। ব্যাস!  উপহাসের একটা স্ট্রাকচার দাড় করিয়ে শুরু হয়ে যায় নতুন উদ্যমে উপহাস.কম।

এখানেই সাফল্য গাথা শেষ হতে পারতো। ব্যস্ততা এবং নানা প্রতিবন্ধকতায় এক বছরের মাথায় ভেঙে পড়ে উপহাস.কম। একরকম সকলে ভেঙে পড়ে এবং কুল হারিয়ে ফেলে। 

অবশ্য এর ফাকে আমি নিজস্ব একটা প্লার্টফর্ম নিয়ে কাজ করে আসছিলাম। উপহাসের যখন ভঙ্গুর অবস্থা, ঠিক সেই সময়েই জন্ম হয় “নতুনব্লগের”।  সময়টা ২০১৭ সালের ০৭ অক্টোবর।এরূপ প্রতিকূল পরিবেশেই জন্ম নেয় “নতুনব্লগ”

এরপর আর পিছনে তাকাই নি। নতুনব্লগ নিয়ে একলা কাজ শুরু করি। গ্রুপের অনেকেই সটকে পড়ে। এর মাঝে পেয়ে যাই পুরনো স্কুল বন্ধু শুভ চৌধুরীকে। যার বেশিরভাগ লেখাই হিট হয়ে আছে নতুনব্লগে। আরো যারা শ্রম দিচ্ছে বিশেষ করে শাহরিয়ার আহমেদ, আতিক ইশরাক এবং কৌশিক সেন তাদের অবদানও কম নয়। এছাড়া ধন্যবাদ xeonBD কে যারা হোস্টিং দিয়ে আমাদের সহায়তা করছে। সবকিছু পেরিয়ে আজ নতুনব্লগ নতুন করে জন্ম নিল।  

যোগাযোগঃ কিউরেটর admin@notunblog.com

সংযুক্ত থাকুন​

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে আমাদের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!

felis quis quis, Phasellus efficitur. id libero. massa